Thursday, April 24, 2008

অনথকপা খেলতাম আহাৎ উবা ইয়া -৩

কালে কালে কালর কথা হাব্বি হুনলেউ বেসেপ
গোকুলানন্দ গীতিস্বামী গিরকে কিতাপারা সময় আহাত মাতে বেলাসিল ‘কালে কালে কালর কথা নাহুনানি নাকরের’। গীতিস্বামী গিরকর কথা এহানি এবাকা ফ্যাশনহান ইসে। সভা সমাবেশ মিটিং পদএগি না তুললে জ্বালাময়ী বক্তৃতাহান পুরা না’র পারা। ‘কালে কালে’তে নানান কথা নুকুলের, আমি কিসারে কথাহান কার কথাহান হুনতাঙাইহান এহানউ চিন্তার বিষয়আহান। গীতিস্বামী গিরকে যে সময়ে পদএগি ইকরেসিল ঔ সময়র লগে, ঔ প্রোপটর লগে এবাকার নিয়াম পার্থক্য। চিন্তার দিকেত্ত মানু রনশীল ইসিলা হায়হান, কিন্তু ঔ সময় এবাকার সাং¯কৃতিক শুন্যতাএহান নেইসিল। সময়অহাত গাঙঅতা নুঙশি-নুঙেই কুমেই, যাত্রা, ফাগি, বাসক, খুবাখুশৈ, পালা, রাস, রাখূয়াল, আরতি, কীর্ত্তনলো মুখরিত ইয়া থাইল। খানার চউল, ডাইল, থৌ, হৌপাতেত্ত অকরিয়া পিদানির ফুতিহান পেয়া নিজে ফলিলা, বুনলা। গাঙগরে ইসালপা, ডাকুলা, রাসধারী, সুত্রধারী, বাসকউলীর অভাব নেইসিল। আজিকালিকার দেকি শিতি-মুর্খঅতাউ নেইসিলা, ডিগ্রীধারী-গর্দভ অতাউ নেইসিলা কিন্তু হারনাপানির বিতরেউ সুসংস্কৃত সমাজ আহান আসিল। ঔ উৎপাদনমুখী সৃজনশীল সংস্কৃত সমাজঅহান এবাকা নেইল। কালর চেপাহাত পড়িয়া হাবি বাগে বাগে গেলগা। কাঙরপালির জয়দেব-খিসুরি, কার্ত্তিকর পালির কাবক, লেরিক হুনানি, গিল্লাখেলা, পাকানা বাহার ককারা লাঠিলো কাংচেই খেলা, লাকাটি সিংনা, বপা-ডাঙ্গর য়্যারি হাবিয়ে পাহুরানি অকরলা। দিন যারগা মাহেই মানু আত্মকেন্দ্রিক বারো ভোগবাদী অ’পরলাগা। বিজাতীয় সংস্কৃতি গোলার হতগর সাদে উরউর হমা আহের। এসাদে অবহেলায় অনাদরে তাপ্প তাপ্প তুম’যারগা যারগা আপাবপার হংকরা রুহিবৃত্তির পাংকালপা বারন অগো।


অর্জ্জুনর বংশধর না ডুম-চেরাল ?
ঠেইপঙর কসর সাদে আমার চরিত্রত নাপুইসে আরাক মনোবৃত্তি আহান ইলতা দাস মনোবৃত্তি, ইংরেজীলো যেহানরে স্লেভারি (ঝষধাবৎু) বুলতারা। নিজরতালো লাসপানি, মানুরতালো ডাঙরসানি এহান ঔ দাস মনোবৃত্তি’র ফলহান।

নিজর ঠার বা মাতৃভাষালো অতারতে গর্ববোধ করানি এহান সভ্যজগতর চলহান, আমারতা উল্টাহান ইসে। টাউনবন্দরে দ্বিদিন-আকদিন থা’পড়লেগাই আমিতে নিজর ঠারহান পাহুরেবেলারাং। ‘আমার সৌ’তে মানুরথার হবাকরে হারনাপেইতারা’ বুলিয়া আমার মালকনকেয়ে লাসপানিতে দুরেইৎ থাক, বরং ডাঙর ইতারা। আমার শিতি ফ্যামিলি যেতা টাউনে অথবা গাংগরে থায়াউ সৌ-শুমারারে হুরকাং কালেত্ত মিয়াঙর ঠার হিকাদিয়া ডাঙর করতারা, তাঙি অহানরে স্ট্যান্ডার্ড জীবনযাত্রার অংশআহান নিংকরতারা এবাকাউ। নিজরতা তলকরিয়া মানুরতালো ডাঙর অনার হৎনা এহান তাঙর মূর্খতা বা বুদ্ধিবৃত্তিক শূন্যতাহান’রেই শা শা করে দেখাদের। তর্ককরেকুরায় যদি এসাদে লেপা দেনা চেইতারা, বাংলা অতারলে তোরতা কিহান ইলথাং, উহান ব্যক্তিগত ব্যাপারহান, এহাত মোর কথাহানি পরিষ্কার- ঠার এহান ব্যক্তিগত ব্যাপারহান নাবে, এহান ইলতায় স্পেসিফিক মাধ্যম আহান যে মাধ্যমহানলো কোনগই মোর লগে কমিউনিকেট করতারা। মোরতা নিজর কোন ঠার নেইলে কথা নেইসিল, কিন্তুমান মোর জাতরগ’ ইয়া মোর লগে মোর ঠারহানলো না অতারলেতে মি অপমানবোধ করুরি, আত্মসম্মানে লাগের। মোর ঠার এহান লেইরা ইলেউ, মোর ঠার এহান মানুরাং সাক্তি ইলেউ মোরাঙতে হুনার তা¤ফাগ’।

লহঙে কাবক বেলিয়া জিলাপী-রসগোল্লা খাওয়ানি চলহান ইয়াপলগা। হরাহার গজে চিনি-অতা কাবক, মুড়ির লারৌ, থুইদিঙর লারৌ, মাংগারা, থাম্বৌর চিলাহার অপার সৌন্দর্য্য দেহানির উপায় নেই। বাজারর জিলাপী রসগোল্লা মিষ্টিলো কাম চালিতে চালিতে এবাকা এহানই বেদ’হান। ওয়ারৌপথ এহান বৈষ্ণব সেবাহান, বৈষ্ণবসেবার প্রসাদ শাস্ত্রসম্মত বারো সাত্ত্বিক অনা লাগের; মিয়াঙর হঙকরা মিষ্টি কিসাদে বৈষ্ণবসেবাত প্রসাদর মর্যাদা পারতা খালকরানির মানু নেই। লহঙর খরচ বাড়িল, ফ্রীজ-মটরসাইকেল-কালারটিভি নাইলে নিঙলর লহঙ নার। মিয়াঙর দেখাদেখি এবাকা গায়ে হলুদ, চতুর্থ-মঙ্গল, মদ্যপানর আসর ইত্যাদির চল নিকুিলল। পুজাপার্ব্বন, সামাজিক অনুষ্ঠান এতাউ এবাকা মিয়াঙর আদলে করানি চেইতারা। বেয়াপা শাড়ী পিদানি হাদাপেইতারা, কিয়াবুল্লে লাহিং-চাকসাবী শাড়ীর অসাদে কমফরটেবল নার। গরর খইতুগ’ বুলতারা ফুংগাহান কারো গরে বিসারিয়া নাপেয়ার। গিথানিপুঙগর জাগাহান বাজারে'ত ল’সি দুর্গা-মাহাদেবর ফটোগয় কালকরলো। এমাটিক রুচিসম্পন্ন সংস্কৃত সমাজ আহার এসাদে তললামানি দেহিয়া দূ:খ লাগের। পিদানির ফুতিহাত্ত ধরিয়া খানার মাথেল, শিল্প, কলা, সংস্কৃতি, বিজ্ঞান... আমার আপাবপায় কিতা নাকরিয়া গেসিগাতা আমার কাজে? আমিতে আমার ভবিষ্যৎ প্রজন্মর কাজে কিত্তাউ করে নারলাং, আপাবপায় আমারাং সিলকরিয়া গেসিগা কালচার অতাউ তাঙরাং সিলকরে নারলাং -এহাত্ত জিঙিন হীন বারো লাসর কথা আরতা নেই।


কাকাড়া বিসারতে হরপ!
অর্জ্জুন-বভ্রুর আর্য্য বংশধররাং এসাদে দাস মনোবৃত্তি কিসাদে হাচুরলো অহার বৃত্তান্তহান হারপানি চিল। কোন আধুনিক প্রমাণিক ইতিহাসগ্রন্থে আমার জাতর নাংসাৎ পেয়া নাপারাং; দুহান আহান বিদেশীর ইকরা লেইরিকে হেইরাপ উল্লেখ পারাঙ, অহানউ ডুম-চেরালর বংশ বুলিয়া। এহান কুপকরে খালকরিল বিষয়হান ইসে। এবাকা হুদ্দা ঠারহান, নিঙলর লাহিং-চাকসাবি বারো গাঙগরে লেইরাপা অনুষ্ঠান কতহানালো জাতহান বুলিয়া টিকিয়া আছিহান।

নিজর সংস্কৃতিহান বেলিয়া আরাক সংস্কৃতি আহান নিজরহান বুলিয়া গ্রহন করানির মধ্যে, নিজর মাতৃভাষাহান বেলিয়া আরাক ঠার আহান মাতৃভাষাহান বুলিয়া গ্রহন করানির মধ্যে কিহান স্ট্যান্ডার্ডহান, কিহান জাতে-কাহানিহান বারো এহার ফলে কিহান সুবিধা পারাঙ, অতীতে কিহান কানাহান ইসিল, ইসে বা ভবিষ্যতে ইতয় এতালো গবেষনা করিলতা আসে। ঔ গবেষনা অতাত না’গিয়া মৈতৈ লেখক আগয় বিষ্ণুপ্রিয়া এতা মণিপুরী নাবে এহান প্রমান করতেগা আমার এরে দাস মনোবৃত্তির কথা এহান যেসাদে ইন্টারপ্রিট করিসে (page 20-21, A Clarification on the Bishnupriyas in relation to Manipuris by Ch. Manihar Singh, Manipuri Sahitya Parishad, Imphal, 1987), তলে হুবহু তুলেদিলু -

“…Socially they are now closer to the Bengali way of life as the women folk don Saris in place of traditional Manipuri skirt ‘Phanek’ and as the members of each family speak Bengali in their mutual communication. …They are not Manipuris nor their language has anything to do with Manipuri. They may be either Assamese Bishnupriyas or Bengali Bishnupriyas…”

অর্থ্যাৎ, সামজিকভাবে তাঙর জীবনধারা বাঙ্গালীর তুলো মিল। তাঙর বেয়াপায় মণিপুরর ঐতিহ্যবাহী লাহিঙর পরিবর্তে শাড়ী পিদিয়া আততারা। গরেউ তাঙি আগই আগর লগে অতারতে বাংলাভাষাহান ব্যবহার করতারা।... তাঙি মণিপুরী নাগই, তাঙর ঠারহার লগে মণিপুরী ঠারর কুনো সম্পর্ক নেই। তাঙরে বড়জোর ‘আসামী বিষ্ণুপ্রিয়া’ বা ‘বাঙ্গালী বিষ্ণুপ্রিয়া’ বুলানি য়াকরের।

গিরকরে চাংঅহান দোষ দেনা একরতইতা?


কলামিস্টঃ
রসরাস শর্মা, বামুনটিলা।

No comments: